শিরোনাম

এককাপ চা একজন নারী ও বিয়ে

আদিল মাহমুদ  |  ১৭:৫৪, জুন ০৬, ২০১৯

এককাপ চা

চাওয়ালা ভাই!
গাঢ় লিকারে এককাপ চা চাই।

হাতে চায়ের কাপ
নেমেছে রাত
ল্যাম্পপোস্ট ছুঁয়ে প্রাণোচ্ছল এই শহরে
গভীর রাতেরও কেউ কেউ আসছে এখানে
ধোঁয়া ওড়া চায়ের কাপ আর
ঠোঁটের এই আলিঙ্গনে তুচ্ছ লাগে নারীর সঙ্গম!

কাপের চুমুক যেন বালকের প্রেমের শিহরণ
ধোঁয়ার সাথে দুঃখ ওড়ে
ঠুকোঠুকি কাপের আড্ডাই এমুহূর্তে উপভোগ্য
খোলা হাওয়ায় ক্লান্তিহীন সময় বইছে অবসরে আসা মানুষের বাইরে ভেতরে।
যেন কোনো অপ্সরীর হাতছানিতে নেমে গেছে পথে হাজার হাজার জনতা...

মনে হচ্ছে
ওরা চা না, সুখ কিনে খাচ্ছে
সুখ কেনার বাজার থাকলে
ক্যাটলিগুলো পড়ে থাকত যেখানে সেখানে

মনের সুখে গান গাইছে যারা
যারা গিটার, কয়েকটা চায়ের কাপ
আর হৃদয়ের ঠুকোঠুকিতে তুলতে চাইছে সুর
তাদের দলে কেন ভিড়ছি না আমি, নাকি ভিড়তে চাইছি অন্য কোনো জলে?

একজন নারী

জন্মলগ্ন থেকেই নারীটা বড্ড পর
কেউ বোঝেনি ওর মন, খোঁজেওনি সুলুকের জলসায়
নারী অলক্ষিণী শয়তানের প্রিয়বাসিনী
তবুও পুরুষ নারীই ঠোঁটে দাস
স্পর্শে সুখ
কখনো অসুখ, কখনো বা ওষুধ
নারী কবিতার মতোই শান্তির আবছায়া চিরকাল

কবি বলেন,
শত ভাগ্যে নারী হয়ে জন্মেছিস
মাতৃত্বের মুখ নিয়ে থাকিস, দুর্গা হয়ে নয়

বিয়ে

বাড়ির পাশে এসেছিলো সে
আষাঢ়ের নতুন জলে ভিজে
বৃষ্টিস্নাত দেহে
পুষ্পিত মাটিতে চন্দনে রাঙা পায়
যে সে একাই একপৃথিবী শ্রাবণ
বেহেশত থেকে নেমে আসা মুখরমুখো হুর

বন্ধুর হৃদয়ের গহীনে
উত্তাপ ছড়াচ্ছে যে
যে কোনোদিন জাগেনি ঘন নিশ্বাসে
অতপর অনেক মিনতিতে আজ ওদের বিয়ে

এসএস

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত