শিরোনাম

মঠবাড়িয়ায় আমনের ভালো ফলন

জামাল এইচ আকন, মঠবাড়িয়া  |  ১৬:৩৭, জানুয়ারি ২৫, ২০১৯

পিরোজপুরে মঠবাড়িয়ায় চলতি মৌসুমে আমন ধানের ভালো ফলন হওয়ায় ও ধানের ন্যায্য দাম পাওয়ায় কৃষকেরা খুশি। এ বছর লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে আমন চাষ ও উৎপাদন দুটিই বেশি হয়েছে। উপজেলায় ৮০ ভাগ খেতে ধান কাটা ও মাড়াই শেষ করেছে কৃষকেরা।

কৃষকেরা জানিয়েছেন, আমন চাষের মৌসুমজুড়ে আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এ বছর আমনের ভালো ফলন পাওয়া গেছে। স্থানীয় বাজারে কৃষক ধানের ন্যায্যমূল্য পাচ্ছেন। এ কারণে কৃষকের মুখে হাসি ফুটেছে।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, এ বছর উপজেলায় ২০হাজার ৩ শত হেক্টর জমিতে আমন ধান চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিলো। এর মধ্যে ১৪ হাজার ৭০০ হেক্টর জমিতে স্থানীয় জাতের আমন ও ৫ হাজার ৬শত হেক্টর জমিতে উফশী আমন আবাদ করা হয়েছে। ইতিমধ্যে ৮০ ভাগ জমির ধান কাটা শেষ হয়েছে। প্রতি হেক্টরে উফশী আমন ধানের উৎপাদন হয়েছে ৪ দশমিক ৫ মেট্রিক টন ও হেক্টরে স্থানীয় জাতের আমন ধানের উৎপাদন হয়েছে ২ দশমিক ৩ মেট্রিক টন।

গত বুধবার (২৩ জানুয়ারি) সকালে সরেজমিনে মঠবাড়িয়া সদরের ধানের হাটে কথা হয় ধান ব্যবসায়ী আ.রশিদ এর সঙ্গে। তিনি বলেন, এ বছর ধানের দাম ভালো হওয়ায় কৃষকেরা খুশি।
উপজেলার নাগ্রাভাংগা গ্রামের কৃষক জাফর ফকির (৫১) কৃষক বলেন, ধান চাষ করে আমরা জীবিকা নির্বাহ করি। ধানের ন্যায্যমূল্য না পেলে সংসারের খরচ ও ছেলে মেয়েদের পড়াশোনা চালানো কষ্টকর হয়ে পড়বে। ধানের বর্তমান বাজার মূল্যে আমরা খুশি। তবে ধানের দাম যেন পড়ে না যায় সেদিকে সরকারের নজর রাখতে হবে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান বলেন, আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এবং কৃষি বিভাগের মাঠকর্মীদের পরামর্শ অনুযায়ী কৃষকেরা সেচ, সার ও কীটনাশক ব্যবহার করায় আমর ধানের ভালো ফলন হয়েছে। কৃষকেরা ধানের ন্যায্যমূল্য পাচ্ছেন। ধানের উৎপাদন বৃদ্ধি ও ধানের ভালো দাম পাওয়ায় এ বছর কৃষকের মুখে হাসি ফুটেছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত