শিরোনাম

চাহিদা বেড়েছে মধুপুরের আনারসের

প্রিন্ট সংস্করণ॥হাফিজুর রহমান. মধুপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি  |  ১১:০০, জুলাই ১১, ২০১৮

গরমে চাহিদা বেড়েছে মধুপুরের রসালো আনারসের, এতে লাভের মুখ দেখছে চাষীরা। টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলার পুরো এলাকা জুড়েই আনারসের চাষ হয়। মধুপুরের অরণখোলা, শোলাকুঁড়ী, আউশনাড়া ইউনিয়নে আনারস সবচেয়ে বেশী চাষ হয়। এসব এলাকায় চাষ হওয়া আনারসের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় আনারস হল জলডুগি ও জায়ান্টকিউ। জানা গেছে, চলতি বছর মধুপুরে সাড়ে ৭ হাজার হেক্টর জমিতে আনারস চাষ হয়েছে। শালবন লাগোয়া গ্রামগুলোতে শুধুই আনারসের বাগান। ওই সকল বাগানগুলোতে পাকা আনারসের আধিক্য। চোখ জুড়ানো সৌন্দর্যে বাগানগুলো। ওই উপজেলায় প্রতিটি বাড়ির পাশেই রয়েছে আনারসের বাগান। সকাল থেকেই জমে ওঠে মধুপুরের জলছত্র, গারো বাজার, মধুপুর বাজার ও ২৫ মাইল বাজারে আনারসের হাট। ওই হাটে উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের চাষীরা কেউ বাইসাইকেলে ঝুলিয়ে, ভ্যান, ঘোড়ার গাড়িতে আবার কেউ পিকআপভ্যানে করে বিক্রি করার জন্য বাজারে নিয়ে আসে আনারস। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ব্যবসায়ীরা আনারস ক্রয় করার জন্য আসে ওই হাটে। এ সময় ব্যবসায়ীরা রাস্তার মুখেই ঘিরে ধরে বিক্রেতাদের কম দামে সবার আগে আনারস ক্রয় করার জন্য। মধুপুর উপজেলার শোলাকুড়ীর আনারস চাষী ইকবাল ফকিরসহ আরো অনেক চাষীরা জানান, এ বছরে আনারসের ফলনও ভাল হয়েছে। গরমের কারণে আনারসের চাহিদা বেশি, ফলে বিক্রিও বেশি। বিক্রয় বেশি হওয়ার সুবাদে আমরা আর্থিকভাবে লাভবান হচ্ছি।
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত