শিরোনাম

খাগড়াছড়িতে ধান কাটা ও মাড়াইয়ে ব্যস্ত কৃষকরা

প্রিন্ট সংস্করণ॥ মাইনউদ্দিন, খাগড়াছড়ি  |  ১১:৩৯, ডিসেম্বর ০৫, ২০১৭

খাগড়াছড়িতে মাঠে এখন রোপা আমন ধান কাটা ও মাড়াইয়ের পুরোদমে শুরু হয়েছে। মাঠের পর মাঠে যেন ধানের শীষ দোল খাচ্ছে। ইতোমধ্যে আবহাওয়া অনুকূল থাকায় মাঠের আগাম পাকা ধান কাটা ও মাড়াইয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষক কৃষাণীরা। সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, খাগড়াছড়ি সদরের পানখাইয়া পাড়া ও পেরাছড়া জমির মাঝখানের নিউজিল্যান্ড সড়কের চারদিকে শুধু ধান পাকা মৌ মৌ গন্ধে ভরে উঠছে। মাঠের পর মাঠ সর্বত্রই রোপা আমন ক্ষেতের সোনালি ও সবুজ ধানের শীষের সমারোহ দেখার মতো।এ নিউজিল্যান্ড সড়কের চারদিকে রোপা আমন পাকা ধান কাটার ও মাড়াইয়ে ব্যস্ত পার করছে। কৃষকের বাড়ির আঙিনায় ভরে উঠছে সোনালি ধান; মুখে ফুটেছে হাসির ঝিলিক। ফসলের মৌ মৌ গন্ধে ভরে উঠছে সারা গ্রাম। উঠানে ছড়ানো সোনালি ধান। সাথে কৃষক কৃষাণীরা আনন্দের বন্যা। ঘরে ঘরে হবে নবান্ন উৎসব আমেজ। পানখাইয়া পাড়া কৃষক চাইহ্লাপ্রু মারমা বলেন, দুই বিঘা জমিতে বিড়ি ধান ৪৯ ধানের আবাদ করেছে। ফসল ভাল হয়েছে। আমন ধান কাটা ও মাড়াইয়ে শুরু হয়েছে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় রোপা আমন ধানের বাম্পার ফলনের আশায় বুক বেঁধে আছেন জেলা কৃষকরা। এ ছাড়া জেলার বিভিন্ন মাঠে বিড়ি ধান ১১ ভাল আবাদ হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় কৃষকরা।
খাগড়াছড়ি জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরে জেলা প্রশিক্ষণ অফিসার মো. আবুল কাশেম বলেন, খাগড়াছড়ি জেলায় ২০১৭ - ২০১৮ অর্থবছরে রোপা আমন ধানের আবাদ লক্ষ্যমাত্রা ছিল ২৭ হাজার ৭শত ৭৮হেক্টর জমিতে। এর মধ্যে ফলনশীল হওয়ায় লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে অর্জিত আবাদ হয়েছে ২৮হাজার ৪শত ৬৪হেক্টর জমিতে। উচ্চ ফলনশীল ৪ লাখ ৭ হাজার ১শ ২০ হেক্টর ও স্থানীয় জাতের ধান ৩ হাজার ৮শ ৫৫হেক্টর জমিতে। তিনি আরো বলেন, ইতিমধ্যে পুরো জেলায় মাঠের কৃষক কৃষাণীরা ধান কাটার শুরু হয়েছে। গত তিন সপ্তাহ যাবৎ প্রায় ৭০ ভাগ ধান কাটার ও মাড়াইয়ে সম্পন্ন করেছে কৃষক কৃষাণীরা। বাকি মাঠের উফসী রোপা আমন ধানগুলো আগামী পনের দিনের কাটার ও মাড়াইয়ের সম্পন্ন হবে। এর মধ্যে সবচেয়ে আবাদ হয়েছে বিড়ি ধান ১১, এ ধান প্রায় ৭ হাজার ৭ শত হেক্টর জমিতে আবাদ হয়েছে। তার পরে সবচেয়ে স্থানীয় কৃষকের জনপ্রিয় বিড়ি ধান ৪৯, এটি ফলন বেশ ভাল বাজার মূল্যে ভাল। সেজন্য কৃষকরা অত্যন্ত এ ধানে প্রতি বেশ আগ্রহী। খাগড়াছড়িতে এ বছর আমনে যে ধান হয়েছে সেটি বাম্পার ফলনের আশা করা হচ্ছে।
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত