শিরোনাম

পচন রোগ ও মাজরা কাটা পোকার আক্রমনে হতাশ কৃষকেরা

প্রিন্ট সংস্করণ॥ জলঢাকা, নীলফামারী  |  ০২:৫৪, অক্টোবর ০৮, ২০১৭

নীলফামারী জলঢাকায় কৃষকেরা নানা চড়াই উতড়াই পেরিয়ে তাদের আমন ক্ষেতকে শীষ বের করার পর্যায়ে নিয়ে আসলেও পচন রোগ ও মাজরা কাটা পোকার আক্রমনের কারণে হতাশ হয়েছে। কীটনাশক ক্ষেতে প্রয়োগ করেও কাজ হচ্ছেনা বলে অভিযোগ করেন অনেক চাষী। এদিকে স্থানীয় কৃষি বিভাগ জানিয়েছে সঠিক নিয়মে সার ও পরিচর্যা না করার কারণে এমনটা হয়েছে।
তাদের তথ্য অনুযায়ী রোপা আমনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ২১ হাজার ৫ শত ৬০ হেক্টর। অর্জিত হয়েছে তারও বেশি। উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের কৃষকের সাথে কথা বলে জানা গেছে, অনেক কষ্ট করে বুক দিয়ে আগলে ক্ষেতকে শীষ বের করার পর্যায়ে নিয়ে এসছে। বন্যা, অনাবৃষ্টি, চারা সংকট, সারের দাম বেশি আরোও অনেক কারণের মধ্যে দিয়ে। এখন মাজরা পোঁকার আক্রমন ও পচন রোগের কারণে চিন্তায় হতাশ হয়ে পড়েছে কৃষকেরা। বগুলাগাড়ি বারোঘরি পাড়ার কৃষক ইসমাইল হোসেন জানান, ৮ বিঘা জমিতে ধান লাগিয়েছি মাজরা পোঁকা ধান গাছের মাঝখানে কেটে দিচ্ছে। আর পচন রোগের কারণে গাছের গোড়া পঁচে যাচ্ছে। কীটনাশক প্রয়োগ করেও ফল পাচ্ছি না।
এখন কি যে হবে আল্লাই জানে। কৈমারীর কৃষক হাছানুজ্জামান সিদ্দিকী জানান, বন্যায় রোয়া নষ্ট হয়ে গেলে আবার চারা কিনে জমিতে লাগাই। এখন ক্ষেতে পোকা ধরেছে। স্প্রে করেও পোকা পালায় না।
লাল হয়ে শুকিয়ে চুনে যাচ্ছে। এব্যাপারে উপজেলা উপ-সহকারী কৃষি অফিসার আজিজুল হক জানান, সঠিক নিয়মে সার প্রয়োগ ও পরিচর্যা না করার কারণে এমনটা হয়েছে। আর বাজারে কিছু ভেজাল কীটনাশকের কারণে পোঁকা নিধন হচ্ছে না। তাই কৃষকের উচিত কৃষি বিভাগের সাথে পরামর্শ করে ক্ষেতে কীটনাশক প্রয়োগ করা।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত