কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে বাণিজ্যকভাবে ফুল চাষ বৃদ্ধি

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি | ১২:৫৭, জানুয়ারি ১১, ২০১৭

কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার চাপড়া ইউনিয়নের সাওতা ব্লকে ডিজিটালাইজড প্রযুক্তিতে বাণিজ্যকভাবে ফুল চাষ বৃদ্ধি পেয়েছে।

কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, ওই ব্লকের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা বকুল হোসেনের প্রচেষ্টায় কৃষকদেরকে উদ্বুদ্ধকরণের মাধ্যমে বাড়ী বাড়ী ও আবাদি জমিতে কৃষকরা বাণিজ্যকভাবে গাদা ও গোলাপ ফুল চাষে আগ্রহি হয়ে উঠেছে।

ওই ব্লকের পাইকপাড়া, শিংদহ ও ইছাখালী গ্রামে ফুল চাষে বাম্পার ফলন হওয়ায় স্থানীয় চাহিদ মিটিয়ে দেশের বিভিন্ন জেলায় এ ফুল রপ্তানি করা হচ্ছে। শীত মৌসুমে ফুলের ব্যাপক চাহিদা হওয়ায় কৃষকরা অতিরিক্ত মুনাফা অর্জন করতে সক্ষম হচ্ছে।

এ ব্যাপারে ফুল চাষি তোজাম উদ্দিন, রফিকুল ইসলাম, আহাদ আলী, আবু বকর, সোলাইমান হোসেন জানান, বাড়ীর আঙ্গিনায় ও আবাদি জমিতে ফুল চাষ করে স্বল্প পরিশ্রম ও সময়ে অধিক মুনাফা অর্জিত হচ্ছে। ৫০ থেকে ৬০ দিনের ফসল হিসেবে প্রতি বিঘায় ৬-১০ হাজার টাকা ব্যয় করে ৭০ থেকে ৮০ হাজার টাকায় বিক্রয় হচ্ছে। ফলে ব্যয় ছাড়ায় বিঘা প্রতি ৬০ হাজার টাকা মুনাফা অর্জিত হচ্ছে।

উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা বকুল হোসেন জানান, কৃষকদের উদ্বুদ্ধকরণের মাধ্যমে বাড়ীর আঙ্গিনায় ও আবাদি জমিতে ফুল চাষ করে কৃষকরা আর্থিকভাবে লাভবান হচ্ছে। এছাড়াও স্থানীয়ভাবে ফুলের চাহিদা মিটিয়ে দেশের বিভিন্ন জেলায় রপ্তানি করা হচ্ছে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক ড. হায়াত মাহমুদ জানান ফুল চাষ লাভজনক হওয়ায় চাষিরা ফুল চাষে আগ্রহি হয়ে উঠেছে।

 



 

 

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
close-icon